ঢাকারবিবার , ১৬ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আবহাওয়া
  4. কর্পোরেট বুলেটিন
  5. কৃষি সংবাদ
  6. খেলাধুলা
  7. গণমাধ্যম
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জেলা সংবাদ
  11. ঢাকা বিভাগ
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নাগরিক সংবাদ
  14. পদ্মাসেতু
  15. পাঁচমিশালি
আজকের সর্বশেষ সব খবর

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষদ ভেদে যত বিভাগ

ইমরান তারিক
জুন ২৭, ২০২২ ৭:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সাবেক সরকারি জগন্নাথ কলেজ ২০০৫ সালে ৪টি অনুষদের অধীনে (কলা, বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ) ২০টি বিভাগ নিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নামে যাত্রা শুরু করে।

এর মধ্যে কলা অনুষদে বাংলা, ইংরেজি, ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, ইসলামিক স্টাডিজ, দর্শন বিভাগ; ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদে একাউন্টিং ও ম্যানেজমেন্ট বিভাগ; বিজ্ঞান অনুষদে উদ্ভিদবিজ্ঞান, রসায়ন, ভূগোল ও পরিবেশ, গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, মনোবিজ্ঞান, পরিসংখ্যান ও প্রাণিবিদ্যা বিভাগ এবং সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদে অর্থনীতি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, সমাজবিজ্ঞান ও সমাজকর্ম বিভাগ অন্তর্ভুক্ত ছিল।

পরবর্তীতে ২০০৬-‘০৭ শিক্ষাবর্ষ থেকে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ফিন্যান্স এবং মার্কেটিং বিভাগ, ২০০৮-২০০৯ শিক্ষাবর্ষ থেকে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত নৃবিজ্ঞান ও গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ এবং কলা অনুষদভুক্ত আইন বিভাগ চালু হয়।

২০১০ সালের ১৩ মার্চ থেকে একাউন্টিং ও ম্যানেজমেন্ট বিভাগের নাম পরিবর্তন করে যথাক্রমে ‘একাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগ’ ও ‘ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগ’ নামকরণ করা হয়।

২০০৯-‘১০ শিক্ষাবর্ষ থেকে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, মাইক্রোবায়োলজি অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি ও ফার্মেসি বিভাগ চালু করা হয়। ২০১২-‘১৩ শিক্ষাবর্ষ থেকে মাইক্রোবায়োলজি অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের নাম পরিবর্তন করে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ নামকরণ করা হয়।

২০১১ সালের ২২ জুন তারিখের একাডেমিক কাউন্সিলের ১৫তম সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে ২০১১ সালের ২৭ জুন তারিখের ৩৯তম সিন্ডিকেট সভায় অনুমোদনক্রমে কলা অনুষদভুক্ত আইন বিভাগ নিয়ে আইন অনুষদ; বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত রসায়ন, গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, পরিসংখ্যান ও কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ নিয়ে বিজ্ঞান অনুষদ এবং উদ্ভিদবিজ্ঞান, ভূগোল ও পরিবেশ, মনোবিজ্ঞান, প্রাণিবিদ্যা, মাইক্রোবায়োলজি অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি ও ফার্মেসি বিভাগ নিয়ে লাইফ অ্যান্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের কার্যক্রম শুরু হয়।

২০১০ সালের জুলাই থেকে সেন্টার ফর ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ, ২০১৩-‘১৪ শিক্ষাবর্ষে কলা অনুষদের অধীনে ড্রামা অ্যান্ড মিউজিক বিভাগ, ফাইন আর্টস অ্যান্ড গ্রাফিক্স বিভাগ, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের অধীনে লোক প্রশাসন বিভাগ এবং ২০১৫-‘১৬ শিক্ষাবর্ষে ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন বিভাগ চালু করা হয়। এছাড়াও ২০১৫-‘১৬ শিক্ষাবর্ষ হতে শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট চালু করা হয়েছে।

২০১৬-‘১৭ শিক্ষাবর্ষে আইন অনুষদের অধীনে ভূমি আইন ও ব্যবস্থাপনা বিভাগ, লাইফ অ্যান্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের অধীনে বায়োকেমিস্ট্রি অ্যান্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগ ও জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগ চালু করা হয়েছে।

২০১৫ সালের ১৬ এপ্রিল তারিখে ‘ফাইন আর্টস অ্যান্ড গ্রাফিক্স বিভাগ’-এর নাম পরিবর্তন করে ‘চারুকলা’ বিভাগ এবং ২০১৬-‘১৭ শিক্ষাবর্ষ থেকে ‘ড্রামা অ্যান্ড মিউজিক বিভাগ’-কে পৃথক করে ‘সংগীত বিভাগ’ ও ‘নাট্যকলা বিভাগ’ নামে দুটি স্বতন্ত্র বিভাগ চালু করা হয়। ২০১৭-‘১৮ শিক্ষাবর্ষ হতে সেন্টার ফর ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ বিলুপ্ত করে ইনস্টিটিউট অব মডার্ন ল্যাংগুয়েজেস চালু করা হয়। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে ০৬টি অনুষদ, ০২টি ইনস্টটিউিট, ৩৬টি বিভাগ রয়েছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি জাগো বুলেটিনকে জানাতে ই-মেইল করুন- jagobulletinbd@gmail.com