ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৮ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আবহাওয়া
  4. কর্পোরেট বুলেটিন
  5. কৃষি সংবাদ
  6. খেলাধুলা
  7. গণমাধ্যম
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জেলা সংবাদ
  11. ঢাকা বিভাগ
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নাগরিক সংবাদ
  14. পদ্মাসেতু
  15. পাঁচমিশালি
আজকের সর্বশেষ সব খবর

রক্তচাপ নীরব ঘাতক; সচেতনতার বিকল্প নেই

জাগো বুলেটিন
মে ১৭, ২০২৩ ৬:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বিশ্ব উচ্চ রক্তচাপ দিবসে বক্তারা বলেছেন, রক্তচাপ নীরব ঘাতক। সঠিক সময়ে চিকিৎসা ও সচেতনতার বিকল্প নেই।
আজ বিশ্ব উচ্চ রক্তচাপ দিবস- ২০২৩ উপলক্ষে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে আয়োজিত এক সেমিনারে বক্তারা এ কথা বলেন।
তারা বলেন, উচ্চ রক্তচাপ রোগের কোনো লক্ষণ নিরূপণ করা যায় না।  কারো উচ্চ রক্তচাপ থাকলেও, তিনি যদি চেকআপ না করেন তাহলে তার সচেতনতা তৈরি হয় না। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে নিয়মিত রক্তচাপ নির্ণয় করা দরকার।
এদিকে, দিবসটি উপলক্ষে দেশব্যাপী নানা কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। এদিন শুরুতে হাসপাতালের সামনে বেলুন উড়িয়ে এসব অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন হাসপাতালের মহাসচিব অধ্যাপক খন্দকার আব্দুল আউয়াল রিজভী।
এরপর হাসপাতালের অডিটোরিয়ামে একটি গণমুখী সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম।
ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের মহাসচিব অধ্যাপক খন্দকার আব্দুল আউয়াল (রিজভী)-এর সভাপতিত্ব করেন।
সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন হাইপারটেনশন কমিটি অব ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ফজিলা-তুন-নেসা মালিক।
তিনি বলেন, উচ্চ রক্তচাপের ফলে অনেক সময় একজন মানুষের জীবনে বড় ধরনের অঘটন ঘটতে পারে। এ জন্য সঠিকভাবে উচ্চ রক্তচাপ পরীক্ষা করা প্রয়োজন। আর এটি কমাতে হলে অবশ্যই আমাদের দৈনন্দিন জীবনে পরিবর্তন আনতে হবে।
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে রোগতত্ত্ব ও গবেষণা বিভাগের প্রধান অধ্যাপক সোহেল রেজা চৌধুরি বলেন, আমরা ২০১৮ সাল থেকে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির পাইলট পর্বের সফল সমাপ্তির পর, ‘বাংলাদেশ হাইপারটেনশন কন্ট্রোল ইনিশিয়েটিভ’ নামে একটি কর্মসূচি শুরু করে যা  দেশের ২৩ জেলার ১৮২ টি উপজেলায় চলমান রয়েছে। বর্তমানে এই কাভারেজ এলাকায় মোট প্রায় ১২ লাখ লোকের স্ক্রিনিং করা হয়েছে। উচ্চ রক্তচাপে ভুগছে এমন রোগীদের রেজিস্ট্রি করা হয়েছে মোট প্রায় ১ লাখ ৬০ হাজার। আর এদের মধ্যে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের হার ৫৩ শতাংশ , যা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়।
সেমিনারে মুখ্য আলোচকের বক্তব্যে ইমেরিটাস অধ্যাপক এ বি এম আবদুল্লাহ বলেন, উচ্চ রক্তচাপ একটি নিরব ঘাতক। জাতিকে সচেতন করা ছাড়া এই রোগ নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। তাই চিকিৎসক ও সাধারণ মানুষদের উচ্চ রক্তচাপ সম্পর্কে সচেতন হতে হবে।
এদিন দুপুরে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের অডিটোরিয়ামে তরুণ চিকিৎসকদের অংশগ্রহণে উচ্চ রক্তচাপ বিষয়ে একটি বৈজ্ঞানিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে উচ্চ রক্তচাপের চিকিৎসার নানা দিক নিয়ে আলোচনা করে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। এ ছাড়াও মে মেজারমেন্ট মানথ- (এমএমএম) এর অধীনে দেশব্যাপী বিনামূল্যে সাধারণ মানুষদের রক্তচাপ পরীক্ষা করা এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি জাগো বুলেটিনকে জানাতে ই-মেইল করুন- jagobulletinbd@gmail.com