ঢাকারবিবার , ১৬ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আবহাওয়া
  4. কর্পোরেট বুলেটিন
  5. কৃষি সংবাদ
  6. খেলাধুলা
  7. গণমাধ্যম
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জেলা সংবাদ
  11. ঢাকা বিভাগ
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নাগরিক সংবাদ
  14. পদ্মাসেতু
  15. পাঁচমিশালি
আজকের সর্বশেষ সব খবর

ঈশ্বরগঞ্জে শিক্ষা অফিসার ও সুপারের বিরুদ্ধে মামলা

মোঃ ইসহাক, ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
অক্টোবর ১৪, ২০২২ ৫:৫৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে সাখুয়া মজিদিয়া দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে দীর্ঘদিন। মামলা চলমান অবস্থায় গোপনে নতুন ম্যানেজিং কমিটি গঠন করায় অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ও ভারপ্রাপ্ত সুপারসহ ১৫ জনকে বিবাদী করে ঈশ্বরগঞ্জ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করেছে অভিভাবকগণ।

জানা যায়, উপজেলার তারুন্দিয়া ইউনিয়নে সাখুয়া মজিদিয়া দাখিল মাদ্রাসায় ২০১৩ সালে অভিভাবকদের না জানিয়ে মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি করার প্রস্তুতি নিলে অভিভাবকগণের পক্ষে আব্দুল আজিজ বাদী হয়ে তৎকালীন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে বিবাদী করে ঈশ্বরগঞ্জ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে একটি অন্য প্রকার মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-১৬৯। প্রায় দশ বছর পার হলেও ওই মামলা এখনো নিষ্পত্তি হয়নি। এরই মাঝে তিন দফায় এডহক কমিটি করে মাদ্রাসার আপতকালীন সময়ে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করা হয়। মামলার বিষয়টি আমলে না নিয়ে আবারও গত ১৫ই সেপ্টেম্বর গোপনে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করে। মামলা চলমান অবস্থায় গোপনে নতুন ম্যানেজিং কমিটি গঠন হওয়ায় অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, গত ৭ সেপ্টেম্বর মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি গঠন করার জন্যে উপজেলা শিক্ষা অফিসার স্বাক্ষরিত একটি তফসিল ঘোষণা করা হয়। তফসিল অনুযায়ী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ১৮ সেপ্টেম্বর ছিল মনোনয়েন জমা, বাছাই ও প্রত্যাহার এবং ২ অক্টোবর নির্বাচন।

মামলার বাদীরা জানান, এই তফসিল শুধু কাগজে পত্রে থাকলেও মাদ্রাসার কোন অভিভাবক জানেন না। এমনকি প্রতিষ্ঠানের নোটিশ বোর্ডেও তা টানানো হয়নি। এরই মাঝে মাদ্রাসার নতুন কমিটির খবর ছড়িয়ে গেলে বিষয়টি নিয়ে কয়েকজন অভিভাবক মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের কাছে জানতে চান। তখন মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত অভিভাবক সদস্যদের একটি কাগজ দেখান। সেই কাগজ দেখার পর অভিভাবকগন ক্ষিপ্ত হয়ে ১০ অক্টোবর ঈশ্বরগঞ্জ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে আবারও অন্য প্রকার একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-৩০৬। কমিটির বিরুদ্ধে আদালতে ২টি মামলা চলমান থাকার পরও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ও ভারপ্রাপ্ত সুপারের যোগসাজশে ১২ অক্টোবর স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হাসান মাহমুদ রানাকে সভাপতি করে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করে।

মাদ্রাসার জমিদাতা সদস্য আব্দুর রহমান খান বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ মামলা জটিলতায় প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষা ব্যাবস্থার পাশাপশি ব্যহত হচ্ছে উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড। কাজেই সকলের মতামতের ভিত্তিতেই ইউপি চেয়ারম্যানকে সভাপতি করে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করা হয়। গোপনে কমিটি করার বিষয়ে জানান, গোপনে কোন কমিটি করা হয় নাই।

মাদ্রাসায় গিয়ে এবং ফোনে যোগাযোগ করেও ভারপ্রাপ্ত সুপার আনোয়ারুল হকের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
ইউপি চেয়ারম্যান জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ মামলা জটিলতায় মাদ্রাসাটির উন্নয়ন কাজ ব্যহত হচ্ছে। ফলে সকলের সাথে আলোচনা করে নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, মামলার বিষয়টি ঘেঁটেই নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় মাদ্রাসার কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি জাগো বুলেটিনকে জানাতে ই-মেইল করুন- jagobulletinbd@gmail.com