ঢাকাশনিবার , ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আবহাওয়া
  4. কর্পোরেট বুলেটিন
  5. কৃষি সংবাদ
  6. খেলাধুলা
  7. গণমাধ্যম
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জেলা সংবাদ
  11. ঢাকা বিভাগ
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নাগরিক সংবাদ
  14. পদ্মাসেতু
  15. পাঁচমিশালি
আজকের সর্বশেষ সব খবর

দুর্গাপুরে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের টালবাহানায় পাঠদান ব্যহত

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি
অক্টোবর ২০, ২০২২ ৪:১৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নেত্রকোণার দুর্গাপুরের এমকেসিএম পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এসএম আলমগীর হাসান প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব থেকে সরে যাওয়ার কথা থাকলেও দীর্ঘদিন ধরে নানান তালবাহানায় পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে।

শিক্ষার্থীদের মারধর,খারাপ আচরণ করা ও পরীক্ষার খাতায় নাম্বার কম দেয়া, বিভিন্ন অযুহাতে অতিরিক্ত ফি আদায়, অবহেলায় স্কুলের পরিবেশ নষ্ট হয়ে যাওয়া ও বাৎসরিক হিসেব-নিকেশে গড়মিল দেখানোসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এসএম আলমগীর হাসান এর অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন করেন ওই স্কুলের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। এর আগেও বেশ কয়েকবার স্থানীয় সচেতনমহল সহ শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন ও আলোচনায় বসেছেন। তবে গেলো ২৮ শে জুন শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের দাবী মেনে নিয়ে এই স্কুল থেকে স্ব-ইচ্ছায় পদত্যাগ করে অন্য স্থানে চলে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও প্রায় ৪ মাস পেরিয়ে গেলেও তিনি ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব থেকে সরে যাচ্ছে না এতে সেখানে নতুন করে প্রধান শিক্ষক আসতে পারছেন না। একজন দায়িত্বশীল প্রধান শিক্ষক না থাকায় যেমন স্কুলের পড়াশোনার মান খারাপ হচ্ছে পাশাপাশি স্কুলের দীর্ঘদিনের সুনাম ক্ষুণ্ন হচ্ছে।

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আলমগীর হাসান অত্র বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করায় আশানুরূপ শিক্ষার পরিবেশ পাচ্ছে না স্থানীয় দরিদ্র অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা।কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ জীবন নিয়ে টালবাহানা করে আসছেন বলে জানায় স্থানীয়রা। এতে সরকারি এ প্রতিষ্ঠান থেকে অভিভাবকরা মুখ ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হচ্ছেন বলে জানা গেছে। এদিকে বিদ্যালয়ের স্কুল ক্ষক সহ মাঠে থাকা শহীদ মিনারটি ও অপরিষ্কার অপরিছন্ন। এছাড়াও স্কুল মাঠে গরু-ছাগল চারণ করা হয়ে থাকে।

শিক্ষার্থীর অনেক অভিভাবক জানান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দায়িত্বে থাকা আলমগীর হাসান শিক্ষার্থীদের সাথে খুবই খারাপ আচরণ করে। শিক্ষার্থীদের মারধর ও করেন। যেসব ভাষায় গালাগাল করেন তা বলার মতো না। এই বিদ্যালয়ে আমাদের সন্তানের পড়াশোনার ভালো পরিবেশ দেখছি না। শুধু তাই নই আমরা অভিভাবকরা কখনও কখনও স্কুলে গেলে আমাদের সাথেও খারাপ আচরণ করতেন তিনি।

এ নিয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এসএম আলমগীর হাসান এর সাথে কথা বলতে ওনার মুঠোফোনে বারবার ফোন করলেও বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি জাগো বুলেটিনকে জানাতে ই-মেইল করুন- jagobulletinbd@gmail.com