ঢাকামঙ্গলবার , ২৫ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আবহাওয়া
  4. কর্পোরেট বুলেটিন
  5. কৃষি সংবাদ
  6. খেলাধুলা
  7. গণমাধ্যম
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জেলা সংবাদ
  11. ঢাকা বিভাগ
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নাগরিক সংবাদ
  14. পদ্মাসেতু
  15. পাঁচমিশালি
আজকের সর্বশেষ সব খবর

একাত্তর টিভিকে মুশফিকুর রহিমের আইনি নোটিশ

জাগো বুলেটিন
ডিসেম্বর ৯, ২০২৩ ৮:০৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট চলাকালীন তাকে নিয়ে স্পট ফিক্সিং প্রতিবেদন প্রচার করায়  বেসরকারি টিভি চ্যানেল একাত্তর মিডিয়াকে আইনি নোটিশ দিয়েছেন মুশফিকুর রহিম।
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট চলাকালীন বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ‘অবস্ট্রাক্টিং দ্য ফিল্ড’ আউট হন মুশফিকুর। ব্যাটিংকালে হাত দিয়ে বল সরিয়ে দিয়ে ক্রিকেটের আইন লঙ্ঘন করে প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটার হিসেবে ‘বল হ্যান্ডলিং’ আউট হন তিনি।
৬ ডিসেম্বর একাত্তর টিভির একটি প্রতিবেদনে বলা হয় মুশফিকের এমন আউটে স্পট ফিক্সিংয়ের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে ঐ প্রতিবেদন সরিয়ে নেওয়া এবং ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে অভিজ্ঞ ব্যাটারের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছে তারা।
মুশফিকুরের পক্ষে একাত্তর টিভিকে এই আইনি নোটিশ পাঠান  সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী শিহাব উদ্দিন খান।
আইনি নোটিশে তুলে ধরা চারটি বিষয় ৪৮ ঘন্টার মধ্যে নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে।
নোটিশে তুলে ধরা চারটি দাবী- সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম থেকে অবিলম্বে প্রতিবেদনটি সরিয়ে ফেলতে হবে, এ ধরনের  প্রতিবেদনের জন্য ঐ টেলিভিশনকে ক্ষমা চেয়ে প্রতিবেদন প্রচার করতে হবে, বিবৃতির মাধ্যমে  ক্ষমা চাইতে হবে  এবং এ প্রতিবেদন করার জন্য ঐ প্রতিবেদককে সতর্ক করা হয়েছে বলে মুশফিকুরের নিকট লিখিতভাবে জানাতে বলা হয়েছে ৭১ টেলিভিশন কর্তৃপক্ষকে।
নোটিশে বলা হয়েছে, এমন প্রতিবেদনের কারণে মুশফিক পারিবারিক, সামাজিক ও ব্যক্তি পর্যায়ে সুনাম ক্ষুনের শিকার হয়েছেন এবং এই বিকৃত তথ্য সম্বলিত প্রতিবেদনের কারণে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হয়েছেন তিনি। কান্ডজ্ঞানহীন প্রতিবেদনের কারণে মুশফিকুরের সুনামও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। ৭১ টেলিভিশনের মত একটি স্বনামধন্য ও দেশের অন্যতম  নিউজ চ্যানেল এমন ধরনের নিউজ প্রচার করতে পারে, এমনটা বিশ^াসযোগ্য নয়।
নোটিশে  আরও বলা হয়, উক্ত প্রতিবেদন সাংবাদিকতার নীতি-আদর্শ মেনে করা হয়নি। একাত্তর টিভির মতো সুপরিচিত চ্যানেলে এমন প্রতিবেদন প্রকাশ অপ্রত্যাশিত। নোটিশে উক্ত প্রতিবেদন দন্ডবিধির ১৮৬০ পেনাল কোডের ৫০০ ধারায় মানহানির অপরাধ ও সাইবার নিরাপত্তা আইন, ২০২৩ এর ২৫(১)(ক), ২৫(২) এবং ২৯ ধারায় সাইবার বুলিং এর অপরাধ উল্লেখ করে প্রতিকার না পেলে ফৌজদারি ও ক্ষতিপূরণ আদায়ে দেওয়ানী আদালতে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি জাগো বুলেটিনকে জানাতে ই-মেইল করুন- jagobulletinbd@gmail.com