ঢাকাশনিবার , ১৩ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আবহাওয়া
  4. কর্পোরেট বুলেটিন
  5. কৃষি সংবাদ
  6. খেলাধুলা
  7. গণমাধ্যম
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জেলা সংবাদ
  11. ঢাকা বিভাগ
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নাগরিক সংবাদ
  14. পদ্মাসেতু
  15. পাঁচমিশালি
আজকের সর্বশেষ সব খবর

গোপাল রায়ের প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘দ্বিবীজপত্রী অপুষ্পক যতিচিহ্নের স্মৃতিকাল’

তানজিদ শুভ্র
ফেব্রুয়ারি ২, ২০২৩ ১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

এবারের বইমেলায় প্রকাশিত হচ্ছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী গোপাল রায় এর প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘দ্বিবীজপত্রী অপুষ্পক যতিচিহ্নের স্মৃতিকাল’। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন প্রকাশক এস এম জসিম ভূঁইয়া। প্রিয় বাংলা প্রকাশন থেকে প্রকাশিতব্য বইটি অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশনীর ৫৯৭ ও ৫৯৮ নম্বর স্টলে পাওয়া যাবে। বইটির মলাট মূল্য রাখা হয়েছে ১৬০ টাকা।

যাপিত জীবনের আঁকাবাঁকা, উঁচুনিচু, দ্বন্ধ, দুঃখ, ঘৃণা, অবহেলা, লোভ প্রভৃতি জীবনের অবিচ্ছেদ্য অতিপ্রাকৃতিক ঘটনার মিশ্রণ কবিতার বই ‘দ্বিবীজপত্রী অপুষ্পক যতিচিহ্নের স্মৃতিকাল’।

হাসোজ্জ্বল, উদ্যোমী, স্বপ্নবাজ ও প্রতিভাবান তরুণ গোপাল রায়। পড়াশোনা করছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাফিক ডিজাইন, কারুশিল্প ও শিল্প কলার ইতিহাস বিভাগে। লেখালেখির পাশাপাশি সম্পাদনা করছেন কবি ও কবিতার ছোট কাগজ ‘হৃদয় হ র ণ’ ও ‘নির্বাধ’। জনপ্রিয় দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় মাকে নিয়ে লেখা ‘আমার মায়ের সোনার নোলক’ প্রকাশিত হলে সেই লেখা থেকে জীবন ভিত্তিক প্রামাণ্যচিত্র তৈরি ও সম্প্রচার করে চ্যানেল আই। প্রথম আলোর ২৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে পাঠকদের মধ্যে লিখে সেরাদের সেরাও হন গোপাল রায়।

উদ্যোমী এই তরুণ সামাজিক কাজেও একনিষ্ঠ। বিভিন্ন সামাজিক সেচ্ছাসেবী কাজ করে চলছেন ‘সবার পাঠশালা’ সেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে। প্রকৃতির বন্ধু গাছ নিয়ে চলা ‘সবুজের অভিযান’- এর মাধ্যমে ‘সবার পাঠশালা’ রোপণ করেছেন এখন অবধি ১৫ হাজারেরও বেশি বৃক্ষ, ঠিক তেমনি মানুষের বন্ধু বই নিয়ে পাড়ায় পাড়ায় লাইব্রেরি গঠনের মধ্য দিয়ে বই পড়ার আন্দোলনও করছেন। এমন কাজের স্বীকৃতি সরূপ আন্তর্জাতিক সংস্থা ওআইসি ও বাংলাদেশ সরকারের যুব ক্রীড়া মন্ত্রণালয় থেকে পেয়েছেন ‘শেখ হাসিনা ভলেন্টিয়ার ইয়ূথ অ্যায়ার্ড ২০২০’ এবং রংপুর সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদ থেকে পেয়েছেন ‘খেরাজ আলী পদক -২০২২’।

গোপাল রায়ের জন্ম নীলফামারীর ডোমার উপজেলার নয়ানী বাগডোকরা গ্রামে। বাবা জয়হরি রায় ও মা সুমিত্রা রানীর তিন সন্তানের মধ্যে তিনিই বড়।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি জাগো বুলেটিনকে জানাতে ই-মেইল করুন- jagobulletinbd@gmail.com